কবে আমরা মানুষ ও দেশের কল্যানে রাজনীতি করবো?

প্রবাসীর দিগন্ত | প্রবাসীরদিগন্ত ডেস্ক : এপ্রিল ২, ২০১৮

রাজনীতির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে জনগন ও দেশের জন্য কাজ করা। রাজনীতিবিদদের কিছু অংশ ক্ষমতায় থেকে আর কিছু অংশ বিরোধী দলে থেকে দেশ ও মানুষের উন্নয়ন সাধনের চেষ্টা করেন। উভয় পক্ষের উদ্দেশ্য এক তবে পন্থা ভিন্ন। তবে সব দলই কৌশল অবলম্বন করেন। রাজনীতিতে যে দল যত কৌশল করতে পারেন, সে দল ক্ষমতায় ততো বেশি সফলতা আনতে পারেন।


আজ ইউরোপে ও বিদেশে যারা বাংলাদেশী রাজনীতি চর্চা করে তাঁদের বিভিন্ন দেশে দেখা যায়, এক দল অন্য দলকে সইতে পারেনা। সব সময় একদল অন্য দলের বিরুদ্ধে লেগেই থাকে। গঠনমুলক কোন সমালোচনা তো নয়ই বরং অযথাই একে অন্যে রাজনৈতিক বিবেদ তৈরি করে সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে।


ইউরোপের এমন অনেক দেশই আছে যেখানে এক দল আরেক দলের সাথে উঠাবসা করে না, ছবি তোলে না কিংবা দাওয়াতও খায় না। অথচ সভ্য দেশে রাজনৈতিক দলের লোকেরা কে কোন দল করলো তাতে কিছু আসে যায় না তবে যে কোন  সামাজিক অনুষ্ঠানে কিংবা গঠন মুলক আলোচনায় সবাই একসাথে দেশের সমস্যার সমাধান করে। নিজেদের মধ্যে সু-সম্পর্ক বজায় রাখে। একে অন্যের সহযোগিতায় এগিয়ে আসে। 

যাদের কাছ থেকে আমরা রাজনীতি শিখেছি, যাদের জ্ঞান ও বুদ্ধি দিয়ে লিখা রাজনৈতিক বইগুলো পড়ছি, আমরা তাঁদের দৈনন্দিন জীবনকে অনুকরন করছি না। তাঁরা কিন্ত শুধু বইতে লিখেনই নাই, তাঁদের কাজে কর্মেও সেগুলোর প্রতিফলন দেখিয়ে যাচ্ছেন। কবে হবে আমাদের দেশের দৈনন্দিন জীবনের রাজনৈতিক জীবনের পরিবর্তন(?)কবে আমরা মানুষ ও দেশের কল্যানে রাজনীতি করবো(?)কবে দল গুলো নিজেদের মধ্যে সৌহার্দতা গড়বে(?) আজ আমাদের হৃদ্যতা, ভাতৃত্ববোধ, সৌহার্দতা, সহমর্মিতা এগুলোর বড়ই অভাব।

অর্থনৈতিক অভাব মোকাবেলার সাথে সাথে আমাদের নিজেদেরকেই এই অভাবও দূর করতে হবে। অন্যথায়, দেশ ঠিকই অর্থনৈতিকভাবে উন্নত হবে কিন্ত আমরা বিশ্ব দরবারে থেকে যাবো সভ্যহীন!


লেখক: রানা তসলিম উদ্দিন, কাউন্সিলর লিসবন সিটি, পর্তুগাল।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: এপ্রিল ২, ২০১৮

প্রতিবেদক: প্রবাসীর দিগন্ত

সর্বমোট পড়েছেন: 757 জন

মন্তব্য: 0 টি