কোটা আন্দোলন নেতা ফারুকসহ তিনজন কারাগারে।

আমির হোসেন | প্রবাসীরদিগন্ত ডেস্ক : জুলাই ৩, ২০১৮

কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসানসহ তিনজনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার বিকেলে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ঢাকার মহানগর হাকিম সুব্রত ঘোষ শুভ। বাকি দুইজন হলেন তরিকুল ইসলাম (২২), জসিম উদ্দিন (২১)।

গ্রেপ্তারকৃতদের তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে রাখতে আদালতে আবেদন করেন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক বাহাউদ্দিন ফারুকী। সে পরিপেক্ষিতে আদালত এ রায় দেন।

এসময় আসামিপক্ষে কোনো আইনজীবী ছিল না। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনে হামলা, গাড়ি পোড়ানো ও নাশকতার অভিযোগে শাহবাগ থানায় দায়ের হওয়া মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান বিষয়টি আরটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করে বলেন। পুরো বিষয়টি তদন্ত ও দেখভাল করছে গোয়েন্দা পুলিশ।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, গত ৮ এপ্রিল রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় পুলিশকে মারধর, কর্তব্য কাজে বাধা, পুলিশের ওয়াকিটকি ছিনতাই ও উপাচার্যের বাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় পুলিশ বাদী হয়ে চারটি মামলা করে।

এসব মামলার মধ্যে উপাচার্যের বাড়ি ভাংচুর ও পুলিশের কর্তব্য কাজে বাধার ঘটনায়করা হয় দুটি মামলা। এছাড়া কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন জারির দাবিতে গত শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে সংবাদ সম্মেলনের প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ঘটনাস্থলে একটি মোটরসাইকেল পোড়ানো হয়।

মঙ্গলবার ওই মোটরসাইকেল পোড়ানোর মামলায় ফারুককে গ্রেপ্তার দেখায় পুলিশ।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: জুলাই ৩, ২০১৮

প্রতিবেদক: আমির হোসেন

সর্বমোট পড়েছেন: 202 জন

মন্তব্য: 0 টি