জমে উঠেছে চট্টগ্রামের ঈদের বাজার

মোঃ জাহেদুল ইসলাম | নিজস্ব প্রতিবেদক : জুন ৯, ২০১৮

জমে উঠেছে চট্টগ্রামের ঈদের বাজার সারাবিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল ফিতরের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। ঈদের আনন্দে মেতে উঠতে তাই চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। ফলে ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড়ে জমে উঠেছে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের ঈদের বাজার। ফুটপাত থেকে শুরু করে অভিজাত শপিংমল পর্যন্ত সবখানে সকাল থেকে গভীররাত পর্যন্ত চলছে কেনাকাটা। প্রতিটি মার্কেটে লাখো ক্রেতার ভিড়। ক্রেতাদের চাপে নিঃশ্বাস ফেলার সময় পাচ্ছে না বিক্রেতারাও। অতিরিক্ত ক্রেতা সামলাতে তাদের হিমশিম খেতে হচ্ছে।

বিক্রেতারা জানিয়েছেন রমজানের শেষের দিকে চাকরিজীবীরা বেতন-বোনাস পাওয়ায় ক্রেতাদের ভিড় আরও বেড়ে গেছে।

চট্টগ্রামের টেরি বাজার, নিউমার্কেট, শপিং কমপ্লেক্স, মিমি সুপার মার্কেট, সানমার ওশান সিটি, লাকি প্লাজা, মতি টাওয়ার, গুলজার টাওয়ার, সেন্ট্রাল প্লাজা, আফমি প্লাজা, ইউনেস্ক সিটি সেন্টার, জহুর হকার্স মার্কেট, রিয়াজউদ্দিন বাজার, তামাকুমন্ডি লেন, বহদ্দার হাট, সিঙ্গাপুর মার্কেটসহ বেশ কয়েকটি মার্কেটের সামনে ফুটপাত থেকে শুরু করে মূল দোকানের ভেতরে কোথাও যেন পা ফেলার জায়গা নেই। সব স্থানেই মানুষ আর মানুষ। যেন জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে ঈদ বাজার। ঈদের কেনাকাটায় সকাল থেকে মানুষের ভিড় থাকে কিন্তু দুপুরের পর থেকে ক্রেতা উপস্থিতি আরও বাড়তে থাকে। ফলে ক্রেতাদের চাপে বিক্রেতাদেরও দম ফেলার সময় নেই।

সাধারণ মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত সাধারণ মানুষ কেনাকাটার জন্য রিয়াজউদ্দিন বাজারকেই বেচে নিচ্ছেন। আর যারা নিম্ন আয়ের মানুষ তাদের জন্য ফুটপাতই ভরসা। এর ফলে বেচাবিক্রির কমতি নেই ফুটপাতেও। আর অভিজাত শ্রেণির মার্কেট হিসাবে পরিচিত নগরীর সানমার ওশান সিটি, মিমি সুপার মার্কেট, ইউনেস্ক, আমীন সেন্টার, সেন্ট্রাল প্লাজাতে কেনাকাটার ধুম লেগেছে।

ইউনেস্ক সিটি সেন্টারের এক বিক্রেতা বলেন, এবছর ভারতীয় ড্রেসের ব্যাপক চাহিদা। গ্রাম কিংবা শহরের সব শ্রেণির তরুণীরা ভারতীয় পোশাক খুঁজছেন।

ছেলেদের পোশাক বিক্রিতেও কমতি নেই। নগরীর ছেলেদের পোশাক বিক্রয়ের ব্যান্ড প্রতিষ্ঠান শৈল্পিক, ম্যানজ, ক্যাটসআই, মুন ওয়াকার, ক্রোকোডাইল প্রতিটি শো-রুমে ব্যাপক কেনাবেচা শুরু হয়েছে।

এ বছর চট্টগ্রামের ঈদ মার্কেটে ভারতের চেন্নাই, কলকাতা, ব্যাঙ্গালোর, দিল্লী ও জয়পুর থেকে বিভিন্ন রঙ ও ডিজাইনের শাড়ি এসেছে। নগরীর মিমি সুপার মার্কেটের বাঁধন, বধূয়া, শাড়িজ, পিন্ধন, সেন্ট্রাল, আঁচল, বন্ধন, মানসী, কানন, শাওন ভাদো, সুন্দরীসহ বিভিন্ন দোকানে বিক্রি হচ্ছে নানা কারুকাজ করা বিভিন্ন দেশি ও বিদেশি শাড়ি। সব মিলিয়ে দারুণ জমে উঠেছে চট্টগ্রামের ঈদের বাজার।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: জুন ৯, ২০১৮

সর্বমোট পড়েছেন: 559 জন

মন্তব্য: 0 টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ