বউদির সঙ্গে সম্পর্কে স্ত্রীর বাধা, রেগে সন্তানকে খুন

শেখ সেকেন্দার আলী | নিজস্ব প্রতিবেদক : জুলাই ৫, ২০১৮

স্ত্রী যখন গর্ভবতী, ঠিক তখনই ভাবির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন স্বামী। সন্তান জন্মানোর পরও ভাবির প্রতি আসক্তি কাটিয়ে উঠতে পারেননি তিনি। বৌদির সঙ্গে প্রতিদিন শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হতেন। এ ঘটনায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন স্ত্রী। আর সেই রাগ গিয়ে পড়ল দেড় বছরের ছেলের ওপর। রাগের মাথায় ছোট্ট শিশুকে মাথায় আঘাত করে খুন করার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, স্ত্রীকেও জোর করে কেরোসিন খাইয়ে খুন করার চেষ্টার অভিযোগ তার বিরুদ্ধে।

ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, আজ বুধবার কলকাতার লেদার কমপ্লেক্স থানার কাঁটাতলা এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তার স্ত্রী এখন হাসপাতালে চিকিত্সাধীন।

খবরে বলা হয়, গত বছর হাড়োয়ার বাসিন্দা পূজাকে বিয়ে করেছিলেন কাঁটাতলার বাসিন্দা সাধু দোলুই। দেড় মাস আগে পূজা তাদের পুত্র সন্তানের জন্ম দেন।
পূজার অভিযোগ, তিনি যখন গর্ভবতী ছিলেন, তখনই ভাবির সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন সাধু। সম্প্রতি দুজনের মেলামেশা আরও বেড়ে গিয়েছিল। পূজা তা প্রতিবাদ করায় গত কয়েকদিন ধরেই তার ওপর অত্যাচার চালাচ্ছিলেন সাধু।

পূজার অভিযোগ বুধবার স্বামীর সঙ্গে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে বিছানায় শুয়ে থাকা দেড় মাসের শিশুর মাথায় ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করেন। ঘটনাস্থলের মৃত্যু হয় শিশুটির। এরপর পূজাকেও জোর করে কেরোসিন খাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। স্থানীয়রা গিয়ে পূজাকে উদ্ধার করেন।

শিশুটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঘটনার পর থেকে সাধু পলাতক রয়েছে।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: জুলাই ৫, ২০১৮

প্রতিবেদক: শেখ সেকেন্দার আলী

সর্বমোট পড়েছেন: 525 জন

মন্তব্য: 0 টি