বান্দরবনের সাথে চট্টগ্রাম-রাঙামাটির সড়ক যোগাযোগ বন্ধ

মোঃ জাহেদুল ইসলাম | নিজস্ব প্রতিবেদক : জুন ১২, ২০১৮

টানা বৃষ্টির কারণে পাহাড়ি ঢলে বান্দরবানের সঙ্গে চট্টগ্রাম ও রাঙামাটির সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে। টানা চারদিন বৃষ্টির পর মঙ্গলবার (১২ জুন) সকালে পাহাড়ি ঢলে সাতকানিয়ার বাজালিয়া এলাকার মাহালিয়ায় বান্দরবান-চট্টগ্রাম সড়কটি পানিতে তলিয়ে গেছে। ফলে চট্টগ্রামের সঙ্গে বান্দরবানের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে গেছে।

এদিকে গতকাল সোমবার ডুবে যাওয়া রাঙামাটি-বান্দরবান সড়কটি এখনও বন্ধ আছে। সোমবার সকাল থেকে কোনও যানবাহন চলাচল করতে পারছে না। তবে অনেকেই নৌকা দিয়ে ডুবে যাওয়া অংশ পার হয়ে রাঙামাটি, বাংগালহালিয়া ও ডলু পাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় যাচ্ছেন। এছাড়া টানা বর্ষণের কারণে বান্দরবানের নিম্নাঞ্চলগুলোও ধীরে ধীরে প্লাবিত হচ্ছে।

গত শনিবার (৯ জুন) বিকাল থেকে টানা বৃষ্টি হচ্ছে বান্দরবানে। এদিকে ভারী বর্ষণের কারণে জেলা শহর ও আশেপাশের কয়েকটি এলাকায় ছোটখাট পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটেছে। তবে কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। মাতামুহুরী নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় লামা উপজেলা বাজারে পানি উঠেছে।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, গত দুইদিন ধরে বান্দরবান শহর ও আশপাশের এলাকাগুলোতে পাহাড়ের পাদদেশের বাসিন্দাদের সরে যেতে প্রশাসন ও পৌরসভার পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। তাছাড়া জেলার সাতটি উপজেলায় সতর্কতামূলক মাইকিং করা হচ্ছে।

বান্দরবান সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সজীব আহম্মেদ বলেন, ‘মঙ্গলবার সকালে প্রধান সড়কটি ডুবে গেছে। এই সড়কটি উঁচু করার জন্য একটি প্ল্যানিং ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এটার অনুমোদন হয়ে গেলে আগামী বর্ষার আগেই সড়ক উঁচু করার কাজ শুরু করবেন।’

বান্দরবান জেলা প্রশাসক মো. আসলাম হোসেন জানান, প্রতিটি উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিংসহ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পাহাড়ি এলাকা থেকে লোকজনকে সরে যেতে বেশ কিছু উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়া মোকাবেলায় প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: জুন ১২, ২০১৮

প্রতিবেদক: মোঃ জাহেদুল ইসলাম

সর্বমোট পড়েছেন: 225 জন

মন্তব্য: 0 টি