বিমান বিধ্বস্তে সিরাজগঞ্জের প্রকৌশলী-শিক্ষক দম্পতির মৃত্যু

প্রবাসীর দিগন্ত | প্রবাসীরদিগন্ত ডেস্ক : মার্চ ১৩, ২০১৮

নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা বিমানের যাত্রীদের মধ্যে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) সহকারী অধ্যাপক ইমরানা কবির হাসি ও তার স্বামী একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী প্রকৌশলী রকিবুল হাসানের মৃত্যু হয়েছে।

এ খবর প্রকৌশলী রকিবুল হাসানের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলায় পৌঁছালে স্বজনদের মধ্যে কান্নার রোল পড়ে যায়। পুরো এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

নিহত রকিবুল হাসান সিরাজগঞ্জের চৌহালী উপজেলার বাঘুটিয়ার ইউনিয়নের বিনানই গ্রামের মৃত রবিউল করিমের ছেলে। রকিবুল হাসান ঢাকায় একটি বেসরকারি সফটওয়্যার কোম্পানিতে চাকরি করতেন। তার স্ত্রী ইমরানা কবির হাসি রুয়েটের সহকারী অধ্যাপক ছিলেন।

নিহতের চাচাতো ভাই বাঘুটিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাহহার সিদ্দিকী এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ১৫ দিনের ছুটি নিয়ে রকিবুল ও হাসি নেপালে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু এর আগেই তাদের বিমান বিধ্বস্ত হয়। এ খবর জানাজানি হলে সোমবার সন্ধ্যায় চৌহালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম রকিবুলের গ্রামের বাড়িতে যান এবং রকিবুলের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। রকিবুলের স্ত্রী হাসি আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে মারা যান।

উল্লেখ্য, সোমবার ইউএস-বাংলার বিমানটি ঢাকা থেকে ৭১ জন আরোহী নিয়ে নেপালের উদ্দেশে যাত্রা করে। ওইদিন নেপালের স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ২০ মিনিটে ৪ ক্রু ও ৬৭ আরোহী নিয়ে বিমানটি কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়। এতে অন্তত ৫০ জনের প্রাণহানির তথ্য পাওয়া গেছে।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: মার্চ ১৩, ২০১৮

প্রতিবেদক: প্রবাসীর দিগন্ত

সর্বমোট পড়েছেন: 358 জন

মন্তব্য: 0 টি