মালয়েশিয়ায় পহেলা বৈশাখ পালনে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি

আহমাদুল কবির | বিশেষ প্রতিবেদক : এপ্রিল ৭, ২০১৮

সোনা ঝরা রোদ ছড়াতে ছড়াতে প্রকৃতি এখন চৈত্রের শেষ সীমায়। ধুলোমাখা বাউল বেশে নাচতে নাচতে আসছে বৈশাখ। দিকে দিকে চলছে নতুন বছর বরণের প্রাক-প্রস্তুতি। বাংলা সন ১৪২৪-কে বিদায় জানিয়ে ১৪২৫-কে স্বাগত জানাতে মালয়েশিয়ায় বাঙালি কমিউনিটির মধ্যে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি।
প্রবাহমান ধারায় নানা লোকাচার উৎসবে প্রাণ পেয়ে সমৃদ্ধ হয়েছে বাঙালির কৃষ্টি। বাঙালির প্রাণের এ উৎসব মূলত বাঙালির ইতিহাস-ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও জাতিসত্তার প্রতীকী উপস্থাপনা। এসব উৎসবের দিনগুলোতে বাংলাদেশের মানুষ বাঙালিত্বের মন্ত্রে দীক্ষিত হয় আরও একবার। বাংলাদেশের সাথে আত্মিক পরিচয় ঘটাতে মালয়েশিয়ায় জন্ম এবং বেড়ে ওঠা শিশুদের জানান দিতে প্রতি বছর কমিউনিটির সামাজিক সংগঠনগুলো বর্ষবরণের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
প্রকৃতির বিরুদ্ধে লড়াই করতে শিখিয়েছে যে বৈশাখ, পুরনোকে পেছনে ফেলে নতুনকে বরণ করে নিতে বছর শেষে আবার আসছে সেই বৈশাখ। আর ৭ দিন  পরই পহেলা বৈশাখ। ১৪২৫ বাংলা বছরের প্রথম দিন। বৈশাখের প্রথম দিনটি ঘিরে গান-বাদ্য আর উৎসব-আমেজে মেতে ওঠা বাঙালির হাজার বছরের ঐতিহ্য। রাত-দিন নিরলস পরিশ্রম করছেন বিভিন্ন ইউনিভার্সিটি ও কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা।
ইতোমধ্যে বিভিন্ন রঙের মিশ্রণে অনবদ্য শৈলীর আমন্ত্রণপত্র তৈরি করা হয়েছে। বিতরণ চলছে দাওয়াতনামা।
প্রবাসীদের আয়োজনে প্রতিবারের মতো এবারও বর্ষবরণের অনুষ্ঠান মালয়েশিয়ার বিভিন্ন ক্লাবে অনুষ্ঠিত হবে। সময়ের পরিক্রমায় মালয়েশিয়ায় বৃহৎ ও সার্বজনীন এক উৎসবে পরিণত হবে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন অনেকে। এমনটাই জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন, এক্সপাট ইন মালয়েশিয়া এবং বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা।
এদিকে ১৪ এপ্রিল বাংলাদেশ এক্সপাট ইন মালয়েশিয়ার বৈশাখী আয়োজনে রয়েছে পান্তা ইলিশ ভোজন এবং দিনভর বাউল গানের আসর। বাঙালির নিজস্ব উৎসবের একটি হচ্ছে পহেলা বৈশাখ। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই দিনটির মাধ্যমে স্বাগত জানাবে নতুন বছরকে। বাংলাদেশের কৃষ্টি কালচার, ইতিহাস ও ঐতিহ্য এ অনুষ্ঠানে তুলে ধরা হবে বলে জানান আয়োজকরা। পহেলা বৈশাখে দিনব্যাপী চলবে বাউল গানের আসর। এছাড়া ২৯ এপ্রিল বাংলাদেশ দূতাবাস কর্তৃক পহেলা বৈশাখ পালন করা হবে। এ নিয়ে ৬ এপ্রিল থেকে শুরু হয়েছে প্রস্তুতি। চলছে নাচ- গান আবৃওির রিহার্সেল। ২৮ এপ্রিল কুয়ালালামপুরের ক্যাফ্ট কালচারাল কমপ্লেক্সে বাংলাদেশফোরাম অ্যাসোসিয়েশন (এমবিএ) দিনব্যাপী নাচ, গান, আবৃত্তি, অভিনয়, কৌতুক ও বৈশাখী মেলার আয়োজনের উদ্যোগ নিয়েছেন অ্যাসোসিয়েশনের কর্মর্তারা। অনুষ্টানটি সফল করতে গত ৩ এপ্রিল বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব অব মালয়েশিয়ার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলোচনায় বসেন অ্যাসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ ।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: এপ্রিল ৭, ২০১৮

সর্বমোট পড়েছেন: 845 জন

মন্তব্য: 0 টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ