রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধসে শিশুর মৃত্যু, ২ শতাধিক ঘর বিধ্বস্ত

শেখ সেকেন্দার আলী | নিজস্ব প্রতিবেদক : জুন ১২, ২০১৮

টানা দুই দিনের ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টিতে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটেছে। এতে রোহিঙ্গাদের দুই শতাধিক ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছে কয়েকজন রোহিঙ্গা। গতকাল রোববার রাত থেকে আজ সোমবার সকাল পর্যন্ত পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে আজ সকালে পাহাড়ধসে এক শিশুর মৃত্যু হয়। পাশাপাশি বৃষ্টির পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে বালুখালীসহ নিচু এলাকার কয়েকটি রোহিঙ্গা ক্যাম্প।
উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নিকারুজ্জামান চৌধুরী জানান, কুতুপালং ক্যাম্পের ডি-ফোর এবং ডি-সেভেন ব্লকে ঝড়ো বাতাস ও পাহাড় ধসে দুই শতাধিক ঘর বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় এক রোহিঙ্গা শিশু নিহত ও কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পাহাড় ধসের পাশাপাশি ভারি বৃষ্টিতে ক্যাম্পের কয়েকটি নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের জানান, উখিয়ার কুতুপালং এলাকার ৭ নম্বর ক্যাম্পের আবদুস শুক্কুরের বসতবাড়িটি তৈরি করা হয়েছিল মাটির দেয়াল দিয়ে। বৃষ্টিতে মাটির দেয়াল ভিজে ভেঙে পড়ে আবদুস শুক্কুরের ঘুমন্ত দুই বছর বয়সী সন্তান সুলতান আহমদের ওপর। এতে শিশু সুলতান আহমদের মৃত্যু হয়। কক্সবাজার রোহিঙ্গা শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোঃ আবুল কালাম জানান, টানা বৃষ্টির কারণে ক্যাম্পে ছোটখাটো ভূমিধসের ঘটনা ঘটছে। বিধ্বস্ত হয়েছে বেশ কিছু রোহিঙ্গার ঘর। আমরা দুর্যোগের ক্ষতি এড়াতে সচেষ্ট রয়েছি। এদিকে স্থানীয় আবহাওয়া অফিস বলছে, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত অব্যাহত রয়েছে। এতে মাঝারি ও ভারি বৃষ্টিপাতের পাশাপাশি দমকা হাওয়া বয়ে যাচ্ছে। এ পরিস্থিতি আরো দুই-তিন অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: জুন ১২, ২০১৮

প্রতিবেদক: শেখ সেকেন্দার আলী

সর্বমোট পড়েছেন: 236 জন

মন্তব্য: 0 টি