শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামলে দায়ভার নিতে হবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের

প্রবাসীর দিগন্ত | প্রবাসীর দিগন্ত ডেস্ক : অগাস্ট ৬, ২০১৮

রোববার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ঢাকা মহানগরীর সব কলেজের (সরকারি-বেসরকারি) অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষদের সঙ্গে জরুরি মতবিনিময় সভায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, শিক্ষার্থীরা আগামীকাল থেকে আন্দোলনে নামলে তার দায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের নিতে হবে।

তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা করে তাদের বোঝাতে হবে। প্রধান শিক্ষক হয়ে যদি শিক্ষার্থীদের বোঝাতে না পারেন তাহলে প্রধান শিক্ষক হয়েছেন কেন?

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, ‘মিথ্যা গুজবে শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। কোনো কোনো মহল এর সুবিধা নিতে পারে। তাই শিক্ষার্থীদের এখন ক্লাসে ফিরতে হবে, ঘরে ফিরতে হবে। তাদের দাবি সরকার মেনে নিয়েছে। দাবি বাস্তবায়নে কাজ চলছে।’

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘তারা যে আন্দোলন করছে তা যৌক্তিক। আমরা তাদের দোষারোপ করছি না। তারা যৌক্তিক দাবিতে রাস্তায় নেমেছে। শিক্ষা পরিবারের সদস্য হিসেবে আমরা তাদের একা ছেড়ে দিতে পারি না।’

‘শিক্ষার্থীরা আমাদের দেখিয়ে দিয়েছে, দেশের সড়কে কীভাবে শৃঙ্খলা আনা যায়। কিন্তু এভাবে দীর্ঘদিন চলতে পারে না। যাদের কাজ তাদের করতে দিতে হবে। শিক্ষার্থীদের এবার ঘরে ফিরতে হবে। ইতোমধ্যে শিক্ষার্থীদের দাবি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তাদের যাতে কোনো ক্ষাতি না হয় সে ব্যাপারে সরকার সজাগ রয়েছে। তাদের কোনো সমস্যা হোক সেটা আমরা চাই না’, বলেন তিনি।

সড়কে চালকরা নিয়ম মানেন না, উল্লেখ করে নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, সড়কে অনিয়ম চলছে। তারা (চালকরা) নিয়ম মানে না। এমনকি সড়কে যেসব গাড়ি চলে সেগুলোই ঠিক না, ফিটনেসবিহীন গাড়ির ছড়াছড়ি। এগুলো চলতে পারে না।

পরিবহন খাতে যারা কাজ করে তারা বাইরের কেউ না, উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারাও আমাদের দেশেরই জনগণ। তাদের সন্তানরাও রাস্তায় চলাচল করেন। সুতরাং এই অনুভূতি তাদের থাকা উচিত।

সভায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন ও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক মো. মাহবুবুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

তথ্য:

বিভাগ:

প্রকাশ: অগাস্ট ৬, ২০১৮

সর্বমোট পড়েছেন: 333 জন

মন্তব্য: 0 টি

সংশ্লিষ্ট সংবাদ